30 C
Kolkata
Wednesday, January 6, 2021
More
    হোম অল্ট বাংলা

    অল্ট বাংলা

    বাংলা ভাষাকে দিতে হবে অগ্রাধীকার – কোলকাতা মেট্রো কতৃপক্ষকে স্মারকলিপি দিল ঐক্য বাংলা

    বাংলার মাটিতে নির্মিত একটি মেট্রো স্টেশনের সাইনবোর্ডে বাংলা ভাষা যে ছোট আকারে লেখা রয়েছে, অথচ হিন্দি বৃহৎ আকারে , উজ্জ্বল হরফে লেখা থাকছে এটা খুবই দুর্ভাগ্যজনক। বাঙালিদের প্রতি এই ধরনের বৈষম্য একেবারেই মেনে নেওয়া যায় না।

    সুপ্রীম কোর্টের রায় অক্ষুন্ন – রবীন্দ্র সরোবরে হল না ছট – সফল হল ‘ঐক্য বাংলা’র লড়াই

    ছট পুজোর দিনে রবীন্দ্র সরোবর চত্বরে প্রতিবাদ ও প্রতিরোধ করতে দেখা যায় একাধিক বাঙালি সংগঠন কে। তাঁদের প্রত্যেককে আমার রক্ত জবা অভিনন্দন – আমাদের সকলের চেষ্টায় আজকে যেবাঙালির গর্ব কলকাতা রবীন্দ্র সরোবর কে আমরা থেকে রক্ষা করতে পেরেছি এর কৃতিত্ব প্রত্যেকটি বাঙালির।

    রবীন্দ্র সরোবরে নিষিদ্ধ ছট পুজো – কোর্টের রায় পালনে দৃঢ় ঐক্যবাংলা

    দিল্লি - ঝাড়খন্ড সহ বিভিন্ন জায়গায় ছটের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে সেখানকার স্থানীয় সরকার। সেখানে কিন্তু কোথাও কাউকে 'হিন্দু বিরোধী' তকমা দেওয়া হয়নি , আমরা রবীন্দ্র সরোবরে ছট না হওয়ার আবেদন জানানোয় শুধুমাত্র রাজনৈতিক কারণে আমাদের 'হিন্দু বিরোধী' তকমা দেওয়া হচ্ছে।

    ৬ দশকের অভিনয় জীবনের সমাপ্তি সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের- পরিবারকে ছেড়ে গেলেন ? এর মুখে (?)

    ৬১ বছরের কেরিয়ারেশুধু সত্যজিৎ রায় নন, তপন সিনহা, মৃণাল সেন, অজয় কর, তরুণ মজুমদার থেকে শুরু করে শিবপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়-নন্দিতা রায়, সৃজিত মুখোপাধ্যায়, অতনু ঘোষ, সুমন ঘোষের মতো আজকের প্রজন্মের পরিচালকদের ছবিতে অভিনয় করেছেন প্রায় ৩০০ টির ও বেশি ছায়াছবিতে।

    “লিঙ্গ সাম্যে বিশ্বাসী বলেই আমি নারীবাদ বিরোধী”- ঐক্য বাংলার নেত্রী সুলগ্না দাশগুপ্ত

    আমি একদমই নারী বিরোধী নই। আমি নারীবাদ বিরোধী। আমি লিবার্টারিয়ান বা মুক্ত পন্থী। তাই স্বাভাবিকভাবেই ব্যক্তির অধিকারে বিশ্বাসী। কোন লিঙ্গ ভিত্তিক গোষ্ঠীর বিশেষ অধিকারে নয়। সেজন্যেই, আমি লিঙ্গ সাম্য বিরোধী তো নয়ই, লিঙ্গ সাম্যে গভীরভাবে বিশ্বাসী বলেই নারীবাদ বিরোধী।

    পথ দেখালো বাংলা – প্রথম বৃহন্নলা বিচারপতি “জয়িতা মন্ডল”

    পথ দেখালো বাংলা - প্রথম বৃহন্নলা বিচারপতি "জয়িতা মন্ডল"

    অন্তিম সৎকার না করেই মণীষা বাল্মিকীর দেহ জ্বালিয়ে দিল যোগী সরকার।

    আর মণিষা'র নিথর হয়ে যাওয়া হৃদয় টা দেখে স্তম্ভিত সারা দেশ। আর ধর্ষক কে এনকাউন্টার করলেই কি মনীষা র যন্ত্রণা পাওয়া দিন গুলো কেউ ফিরিয়ে দিতে পারবে? কবে শেষ হবে এই নারকীয় অত্যাচার? ধর্ষকদের কি শাস্তি হলে আর কোনো নির্ভয়া - মণীষা দের এভাবে যন্ত্রণা পেতে হবে না?

    মহাষষ্ঠী ও মহাসপ্তমীর দিনে পড়ল UGC NET পরীক্ষা – প্রতিবাদে সরব ঐক্য বাংলা

    আপামর বাঙালির সর্বশ্রেষ্ঠ উৎসব দূর্গাপুজা। আর ২০২০ র UGC NET পরীক্ষার সময়সূচি অনুসারে ২১শে অক্টোবর ও ২২শে অক্টোবর (যা আসলে দুর্গাষষ্ঠী ও দুর্গাসপ্তমী) ভারতে...

    শেয়ার বাজারের হাল হকিকত – 12/09/2020

    তবে বাজার তো চলে এই উঠা নামার সাপ লুডোর ভিতর দিয়েই তাই ইনভেষ্টেরাও মনে বল রাখুন আমি একটা কথাই বলি শেয়ার বাজারে যারা অল্পেই অধৈর্য হন তাদের স্থান বড়ই সীমিত বরং স্থির মস্তিস্কে, ধৈর্য, জ্ঞান ও বুদ্ধি প্রয়োগের মাধ্যমই হলো শেয়ার বাজারে টিঁকে থাকার মূল মন্ত্র।।

    ক্ষমা চাইতে বাধ্য হলেন বিশ্বভারতীর উপাচার্য বিদ্যুৎ চক্রবর্তী – ঐক্য বাংলা’র প্রতিবাদের জের!

    এটি নিঃসন্দেহে বাংলাদ্রোহী ও বাঙালি বিদ্বেষীদের কাছে একটি বার্তা দেবে যে বাঙালি জাতির মহীরুহদের অপমান করে পার পেয়ে যাওয়ার দিন শেষ হয়ে গিয়েছে। ঐক্য বাংলা সেটা সুনিশ্চিত করছে এবং করবে।

    এক্সরের রেট ২৫০/- হলেও মোট খরচ ৭৫০/- ব্যবহৃত পিপিই কিটের নামে অবাধ লুট গড়িয়ায়

    পিপিই কিট অবশ্য প্রয়োজনীয়। সে যেমন জরুরী স্বাস্থ্যকর্মী দের জন্য তেমনই জরুরী পেশেন্টের সুরক্ষার জন্যেও। কিন্তু সেই অত্যাবশ্যকীয় বস্তুর এমন কালোবাজারী কি নজরে আসেনা সরকারী আমলাদের? পয়সা দিয়েও যেখানে সুরক্ষা পাওয়া স্মভব হচ্ছে না, সেক্ষেত্রে কেন এই অবাধ লুট তরাজ?

    বিজেপি নেত্রী অগ্নিমিত্রা পালের মন্তব্যের তীব্র নিন্দা জানিয়ে বহুমুখী কর্মসূচির আয়োজন করল ‘ঐক্য বাংলা

    "পৌষ মেলার মাঠে 'sex racket' ও বিভিন্ন অসামাজিক কার্যকলাপ চলে" মন্তব্যকে কেন্দ্র করে অগ্নিমিত্রা পালের মন্তব্যের বিরুদ্ধে সামাজিক মাধ্যমে বহুমুখী অনলাইন কর্মসূচির আয়োজন করল বাংলার প্রথম মুক্তপন্থী বাঙালি জাতীয়তাবাদী সংগঠন 'ঐক্য বাংলা'।

    অবশ্যই পড়ুন