যতদিন দেশের একটি কুকুরও অভুক্ত থাকবে, ততদিন আমার মুক্তি নেই – স্বামিজী

স্বামীজী আজও রয়েছেন আমাদের মাঝে, আমাদের অন্তরে, আমাদের প্রতিটি স্নায়ু ও পেশীতে। জুগিয়ে চলেছেন সাহস, উদ্যম, আহ্বান করে চলেছেন- "উত্তিষ্টত জাগ্রত প্রাপ্য বরাণ নিবোধত"

0
320
- বিজ্ঞাপন -

আজ ৪ঠা জুলাই। রণক্লান্ত বীর সেনাপতির যুদ্ধ হতে অবসর নেওয়ার দিন। আজ মায়ের ছেলের মায়ের কোলে ফিরে যাওয়ার দিন। আজ রাখাল মহারাজের “লোরেন”-এর সপ্তর্ষি মণ্ডলে ফিরে যাওয়ার দিন, আজ ঠাকুরের “নরেন”-এর কৈলাসে ফেরার দিন।

১৯০২ সালের ৪ঠা জুলাই রাত ৯টা বেজে ২ মিনিটে এই বিশাল মহীরুহের পতন ঘটে। কিন্তু সত্যিই কি তিনি মৃত? নাহ…

স্বামীজী রক্তমাংসে গড়া কোন মনুষ্যদেহ নয়, তিনি জ্বলন্ত জ্ঞানশলাকা, তিনি গীতোক্ত কর্মপ্রেরণা, তিনি অব্যাভিচারিণী ভক্তি, তিনি তেজ ও বীর্যের অক্ষয় ভাণ্ডার। নিজমুখে তিনি বলেছেন- “যতদিন দেশের একটি কুকুরও অভুক্ত থাকবে, ততদিন আমার মুক্তি নেই।”

- বিজ্ঞাপন -

স্বামীজী আজও রয়েছেন আমাদের মাঝে, আমাদের অন্তরে, আমাদের প্রতিটি স্নায়ু ও পেশীতে। জুগিয়ে চলেছেন সাহস, উদ্যম, আহ্বান করে চলেছেন- “উত্তিষ্টত জাগ্রত প্রাপ্য বরাণ নিবোধত”

শত সহস্র প্রণতি তব চরণে, হে “নর-নারায়ণের নর ঋষি”, হে “অখণ্ডের চার ঘরের এক ঘর”, হে “খাপ খোলা তলোয়ার”। মোদের ক্লীবতা বিনাশ কর।

আরো পরুনঃ  চিরবিদায় জানালেন প্রণব মুখার্জী - একমাত্র বাঙালি (প্রাক্তন) রাষ্ট্রপতি
- বিজ্ঞাপন -