শেয়ার বাজারে কেনাকাটা – ১৯-০৫-২০২০

গতকালের শেয়ার বাজারের ব্যাপক ধসের পর আজকে আমেরিকার ডাউজোনস ও বিশ্ববাজারের বিরাট উর্ধগতির পরিপ্রেক্ষিতে প্রত্যশা মতন নিফ্টির গ্যাপ আপ ওপেনিং হয় যার সূচনা ভারতীয় শেয়ার বাজার খোলার আগেই SGX nifty র ট্রেড থেকেই ধারনা করা যাচ্ছিল।

0
562
- বিজ্ঞাপন -

অমিত গুপ্ত

গতকালের শেয়ার বাজারের ব্যাপক ধসের পর আজকে আমেরিকার ডাউজোনস ও বিশ্ববাজারের বিরাট উর্ধগতির পরিপ্রেক্ষিতে প্রত্যশা মতন নিফ্টির গ্যাপ আপ ওপেনিং হয় যার সূচনা ভারতীয় শেয়ার বাজার খোলার আগেই SGX nifty র ট্রেড থেকেই ধারনা করা যাচ্ছিল।

- বিজ্ঞাপন -

কিন্ত বাস্তব ক্ষেত্রে নিফ্টির উর্ধগতি বজায় থাকেনি যদিও নিফ্টি আজ গতকালের তুলনায় ৫৯ পয়েন্ট উপরে বন্ধ হয়েছে। এখন দেখাযাক সারাদিনে নিফ্টির চালচলন কি ছিল। আজ নিফ্টির ওপেনিং হয়েছে ৮৯৬১ ও ক্লোজ হয়েছে ৮৮৭৯।

নিফ্টির হাই লো যথাক্রমে ৯০৩০ ও ৮৮৫৫। এখন দেখা যাচ্ছে নিফ্টি ৯০০০ এর ওপর সাসটেন করতে পারেনি এবং বাজারের দূর্বলতা সেখানেই ফুটে উঠেছে.বাস্তবিক নিফ্টির উর্ধগতি কে ব্যাঙ্ক নিফটি যোগ্য সহবত না করে তালভঙ্গ করেছে এবং ব্যাঙ্ক নিফটির অন্তর্ভুক্ত শেয়ারগুলির ওপর সেলিং প্রেসার যথেষ্ট বেশী হওয়ায় বাজার বেশ ওপরে উঠেও আবার নীচে নামতে বাধ্য হয়েছে।

বাজারের শুরু থেকেই স্টেট ব্যাঙ্কের সেলিং প্রেশার বেশী থাকায় দুর্বল ছিল এবং রিলায়ন্স ইন্ডাস্ট্রি কেও মূয়মান লাগছিল এবং নিফ্টিতে এই দুটি শেয়ারের ওয়েট ও বেশ বেশী। কাজেই বিশ্ববাজারে ডাউজোন্সের ব্যাপক উথ্থানের সুযোগ ভারতীয় বাজারে ততটা পরিলক্ষিত হয়নি। পূর্বের ঘোষনা মতন ফার্মা স্টক বিশেশতঃ” সিপলা “পরপর দুদিন যথেষ্ট দাপট দেখিয়েছে অপর দিকে স্টেট ব্যাঙ্ক ১৬৫ এর সাপোর্ট ভেঙ্গে নীচে ক্লোসিং দিয়েছে। মনে হচ্ছে এর পরের গন্তব্য স্থল যথাক্রমে ১৫০, ১৪৫ ,ও ১৪০ যাইহোক আগামীকালের বাজারের খেলাধুলায় যথেষ্ট ভোলাটিলিটি থাকলেও শেষ হাসি মনে হচ্ছে বিয়ারদের ই কপালে জুটবে.অতএব এখন ট্রেডারদের জন্য খেলার মুলমন্ত্র হলো “সেল অন রাইজ”আর লংটার্ম ইনভেস্টর রা “বাই অন ডিপ”। বিশেষতঃ জ্বালানী তেলের স্টক ও গরম পানীয় স্টক গুলিকে অল্প অল্প করে ঝুলিতে ভরা ভবিষ্যতের জন্য।

আরো পরুনঃ  ক্রমাগত সুদের হার কমানো কতটা যুক্তি সঙ্গত

বিদ্রঃ আমার নিজের/পরিবারে কোন স্টকে কোন রূপ প্রত্যক্ষ বা অপ্রত্যক্ষ বিনিয়োগ নেই।

- বিজ্ঞাপন -