Saturday, June 19, 2021

সফেদ ঝুট বিজেপি র। সরানো হল বিজ্ঞাপন, কুলুপ কর্মী সমর্থকদের মুখে… ঘর না পেলেও রাতারাতি ফেমাস লক্ষী দেবী।

মাসিক ৫০০ টাকার ভাড়ায় থাকা ঝুপড়িতে থাকা লক্ষীদেবী নিজেই জানেন না যে বিজ্ঞাপনে ব্যবহৃত সেই ছবি কবে তোলা হয়েছিল আর কেই বা তুলেছিল। অথচ তাঁর ছবির পেছনে আস্ত একখানা পাকা ঘর দেখানো হয়েছে বিজ্ঞাপনে।

অবশ্যই পরুনঃ

বৌবাজার মালঙ্গ লেনের লক্ষী দেবীর ছবি ছাপা হয়েছিল প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্রভাই মোদীজির সাথে আর ফলাও হলে ঘোষণা করা হয়েছিল।

এনার মতো আরো ২৪,০০,০০০ গৃহহীন মানুষের প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনায় “পাকা ঘর” পাবার কথা। হোর্ডিং – ব্যানার – পোস্টারে রাতারাতি বিখ্যাত হয়ে যাওয়া লক্ষী দেবী উক্ত যোজনায় ঘর না পেলেও যারপরনায় খুশি “ভাই” নরেন্দ্র মোদীর উপর।

আরো পরুনঃ  চিরবিদায় জানালেন প্রণব মুখার্জী - একমাত্র বাঙালি (প্রাক্তন) রাষ্ট্রপতি

আরো পরুনঃ বুদ্ধদেব দাশগুপ্তর ই-শুভেচ্ছা আর মাধবী মুখোপাধ্যায়ের আশীর্বাদ সহকারে মুক্তি পেল বাইলেন

বছর ১০ আগে মারা যান রিক্সাচালক স্বামী। বিহারে ছাপড়া জেলার এই মহিলা বিগত কয়েক দশক ধরে বাংলার অধিবাসিনী। ভোট ও দেন এখানেই।

মাসিক ৫০০ টাকার ভাড়ায় থাকা ঝুপড়িতে থাকা লক্ষীদেবী নিজেই জানেন না যে বিজ্ঞাপনে ব্যবহৃত সেই ছবি কবে তোলা হয়েছিল আর কেই বা তুলেছিল। অথচ তাঁর ছবির পেছনে আস্ত একখানা পাকা ঘর দেখানো হয়েছে বিজ্ঞাপনে।

আরো পরুনঃ আন্তর্জাতিক নারী দিবসে আমরি হাসপাতাল ও বাঙালি বৈদ্য সমাজ সম্মানিত করল সমাজের বিভিন্ন কৃতি মহিলাদের

ভোটের প্রচারে ব্যবহৃত বিভিন্ন প্রতিশ্রুতি পালন হয় নি / হয় না – এমনটা দেখে আমরা অভ্যস্ত। কিন্তু ভারত সরকারের দ্বারা প্রচারিত বিজ্ঞাপন সম্পূর্ণ ভূয়ো, এটা বোধহয় এই প্রথম। আর লক্ষীদেবী সেই ১০০% মিথ্যার জলজ্যান্ত উদাহরণ। মিথ্যার ঘটনা সামনে আসতেই মুখে কুলুপ এঁটে রাতারাতি সরিয়ে নেওয়া হল সমস্ত দস্তাবেজ।

আরো পরুনঃ  বিশ্বকবির অন্তিম সময় ও জনতা - অনিকেত চৌধুরী

আরো পরুনঃ ভোটের দামামা আর কোভিড কে মাত করেই উদ্বোধন গড়িয়াহাট সঙ্গীত মেলা – আহারে বাহারে

কিন্তু শাক দিয়ে কি আর মাছ ঢাকা যায়? তবুও নিরন্তর মিথ্যার ঝুলি থেকে পাহাড়প্রমান বেড়াল দিয়েই ভোট বৈতরণী পার করতে চাইছেন দিল্লী তথা বাংলা বিজেপি।

এর আগেও নির্বাচনী প্রচারে শুভেন্দু অধিকারী প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন যে বাংলায় বিজেপি ক্ষমতায় এলে বিভিন্ন কেলেঙ্কারি র টাকা ফেরত করবেন জনগনকে। ঠিক যেমন টা করেছেন কেন্দ্রে ২০১৪ থেকে ক্ষমতায় থাকা বিজেপি সরকার বিদেশ থেকে কালোধন ফেরত এনে প্রত্যেক ভারতবাসীর একাউন্টে ১৫,০০,০০০ টাকা পাঠিয়ে?

আরো পরুনঃ  এখন আপনার স্মার্টফোন এপ এ মাপুন অক্সিজেন স্যাচুরেশন, হার্ট ও পালস রেট - অভিষেক সেনগুপ্ত, মনসিজ সেনগুপ্ত ও শুভব্রত পালের যুগান্তকারী আবিষ্কার।

আরো পরুনঃ বিধবা মহিলার সাথে প্রতারণা ৪০ লাখেরও বেশী, মাণষিক যন্ত্রণা দিয়ে খুন করার চেষ্টা মামা – ভাগ্নীর ভুয়ো পরিচয়ে – স্বপরিবারে প্রতারণার ব্যাবসা

বিশ্বব্যাপী লকডাউন পরিস্থিতিতে পি এম কেয়ার্স ফান্ড নামক ব্যাক্তিগত ট্রাস্ট গঠন করে কয়েক লক্ষ কোটী টাকা (না কি আরোও অনেক বেশি – সবটাই হিসেব বহির্ভুত) অনুদান নিয়ে সরকারি তহবিল থেকে ৩ মাসে ৫০০ টাকা করে কিছুসংখ্যক মহিলার একাউন্টে পাঠিয়ে উড়ো খই গোবিন্দায় নমঃ করা বিজেপি থিঙ্কট্যাঙ্ক ভারতবাসীকে বোকা বানিয়ে চলেছেন তেমন ভাবে?

আরো পরুনঃ  আবারও এক নক্ষত্র পতন হল। প্রয়াত হলেন চলচ্চিত্র পরিচালক বুদ্ধদেব দাশগুপ্ত।

আরো পরুনঃ মমতা ব্যানার্জী র পর কে হবেন বাংলার মুখ? কে কোন স্থানে অবস্থান করছেন?

এই প্রহশন আর কতো? ভোটে জিততে এমন মরিয়া কার্যকলাপ কেন? তাহলে কি সত্যিই বাংলা নিজের মেয়েকে চায়? আর সেটা বুঝতে পেরেই ঘুম উড়ে গেছে বিজেপির আইটি সেলের? ডিজিটাল মার্কেটিং টিম এর করা ফেক ভিডিও, ফেক ছবি, লক্ষ লক্ষ ফেক টুইটের অভ্যাসে অভ্যস্ত টিম বিজেপি ব্যবহার করতে শুরু করেছে ভারত সরকারের মন্ত্রালয় কেও? এ লজ্জা বাংলার। এ লজ্জা সমগ্র ভারতের। এ লজ্জা সমগ্র ভারতবাসীর।

আরো পরুনঃ বাঙালি জাতীয়তাবাদ শুধু আবেগ নয়, বাঁচার লড়াই – সুলগ্না দাশগুপ্ত

ভিডিও ক্রেডিটঃ নিউজলন্ড্রি

- Advertisement -

আরো প্রতিবেদন

1 মন্তব্য

একটি মতামত জানান

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

- Advertisement -

সদ্য প্রকাশিতঃ