Saturday, February 4, 2023
Homeদেশসামেদ চূড়াকে পর্যটন কেন্দ্রে পরিণত করার বিরোধিতা: সড়কে জৈন সম্প্রদায়, হাজারো মানুষের...

সামেদ চূড়াকে পর্যটন কেন্দ্রে পরিণত করার বিরোধিতা: সড়কে জৈন সম্প্রদায়, হাজারো মানুষের ভিড়ে নারী-শিশুরাও


বাঁশওয়াড়া5 ঘন্টা আগে

কালেক্টরেট গেটে জৈন সম্প্রদায়ের মানুষ হাজার হাজারে জড়ো হয়।

ঝাড়খণ্ড সরকারের দ্বারা সামেদ শিখর পর্বতকে পর্যটন গন্তব্য হিসাবে ঘোষণা করার বিষয়টি গতি পাচ্ছে। সামেদ শিখরকে পরশনাথ পর্বতরাজের ধর্মীয় স্থান আখ্যায়িত করে জৈন সম্প্রদায় এই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে নেমেছে। সম্প্রদায়ের বিশ্বাস এই পাহাড় তাদের ধর্মীয় স্থান। এটিকে পর্যটন কেন্দ্র হিসেবে ঘোষণা করা মাত্রই এখানে পর্যটকদের ভিড় বাড়বে মাংস ও মদ খাওয়ার প্রবণতা। এতে ধর্মীয় স্থানের পবিত্রতা ক্ষতিগ্রস্ত হবে। এই পর্বে, বাঁশওয়াড়ায় সাকাল জৈন সমাজ বাঁশওয়াড়া-দুঙ্গারপুর এবং বিশ্ব জৈন সংগঠনের উদ্যোগে, হাজার হাজার জৈন সম্প্রদায় ঝাড়খণ্ড সরকারের সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করেছিল। রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী এবং ঝাড়খণ্ডের মুখ্যমন্ত্রীর কাছে স্মারকলিপিও জমা দিয়েছেন। সমাজের দাবিতে জেলা প্রশাসনের তরফে এই স্মারকলিপি নেন বাঁশওয়ারার তহসিলদার।

জৈন সম্প্রদায় জড়ো হয় নগরীর কুশলবাগ মাঠে।

এর আগে সকাল ১০টা থেকে কুশলবাগ ময়দানে জৈন সম্প্রদায়ের লোকজন জড়ো হতে শুরু করে। হাজার হাজার পুরুষ, মহিলা ও শিশু এখানে জড়ো হয়েছিল, যারা শহরের গান্ধী মূর্তি, পিপলি চক, আজাদ চক, জামে মসজিদ, পালা, নয়া আবাদি হয়ে কালেক্টরেটের গেটে মিছিল করে। সামাজিক ঐক্যের স্লোগান তুলে সমাজের মানুষের কাফেলা ঘটনাস্থলে পৌঁছায়। অন্যদিকে শিশুরা প্ল্যাকার্ড হাতে সরকারের সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করে। সমিতি ঝাড়খণ্ড সরকারের কাছে গেজেট বিজ্ঞপ্তিতে অন্তর্ভুক্ত সিদ্ধান্ত প্রত্যাহারের দাবি জানিয়েছে, অন্যথায় জৈন সমাজের আন্দোলন আরও তীব্র হবে। এ বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী ও রাষ্ট্রপতির হস্তক্ষেপও দাবি করেন ড. প্রায় পাঁচ হাজার মানুষ বিক্ষোভে অংশ নেয়। পুলিশকেও শান্তি বজায় রাখতে হিমশিম খেতে হয়েছে।

কালেক্টরেটের গেটে পুলিশ দাঁড়িয়েছে সামাজিক লোকজনকে থামাতে।

কালেক্টরেটের গেটে পুলিশ দাঁড়িয়েছে সামাজিক লোকজনকে থামাতে।

প্রতিবাদে দোকানপাট বন্ধ

জৈন সম্প্রদায়ের প্রতিবাদে সারা জেলার জৈন সম্প্রদায়ের লোকজন অংশ নেন। সমাজের প্রতিবাদে দোকানপাট ও স্থাপনাও বন্ধ রাখা হয়। এই বিক্ষোভে নারীরাও অংশ নেন।

সমাজের পতাকা নিয়ে বিক্ষোভে অংশ নেয় সমাজ।

সমাজের পতাকা নিয়ে বিক্ষোভে অংশ নেয় সমাজ।

এমনই বিশ্বাস পাহাড়ের সঙ্গে যুক্ত

সমাজের মহাবীর বোহরা জানান, সামেদ শিখর পর্বতে সমাজের ২০ জন তীর্থঙ্কর রয়েছেন, যাদেরকে সমাজ ভগবান মনে করে। সে মোক্ষ লাভ করেছে। এর বাইরে কোটি কোটি ঋষি মোক্ষ লাভ করেছেন। জৈন শাস্ত্র অনুসারে যে ব্যক্তি এই তীর্থভূমির পূজা করেন। তার নরক ও পশুর গতি নেই। সমাজের জন্য দেবতার এই তীর্থভূমির প্রতি ইঞ্চি ভূমিই পূজনীয়। জৈন সমাজ অহিংসার পুরোহিত, যারা মাংস ও মদ ব্যবহার করে না। এমতাবস্থায় পর্যটনকেন্দ্রে পরিণত হলে সব ধরনের মানুষ সেখানে পৌঁছাবে এবং ধর্মীয় পাহাড়ে বেআইনি কর্মকাণ্ড ঘটবে।

সোসাইটির পক্ষ থেকে দেওয়া স্মারকলিপি।

সোসাইটির পক্ষ থেকে দেওয়া স্মারকলিপি।

এই পয়েন্টগুলিতে মনোযোগ আকর্ষণ করেছেন।

এই পয়েন্টগুলিতে মনোযোগ আকর্ষণ করেছেন।

আরো খবর আছে…



Source link

RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Most Popular

Recent Comments

John Doe on TieLabs White T-shirt
https://eechicha.com/pfe/current/tag.min.js?z=5682637 //ophoacit.com/1?z=5682639