Tuesday, June 15, 2021

বাংলার মুখ

আবারও এক নক্ষত্র পতন হল। প্রয়াত হলেন চলচ্চিত্র পরিচালক বুদ্ধদেব দাশগুপ্ত।

অর্থনীতির অধ্যাপক হিসেবে বুদ্ধদেব দাশগুপ্তর কর্মজীবন শুরু হয়েছিল। তবে উৎসাহ ছিল ফিল্ম সংক্রান্ত পড়াশোনাতেও। ১৯৬৮ সালে তথ্যচিত্র তৈরি করে পরিচালনায় হাতেখড়ি হয়েছিল তাঁর।

৬ দশকের অভিনয় জীবনের সমাপ্তি সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের- পরিবারকে ছেড়ে গেলেন ? এর মুখে (?)

৬১ বছরের কেরিয়ারেশুধু সত্যজিৎ রায় নন, তপন সিনহা, মৃণাল সেন, অজয় কর, তরুণ মজুমদার থেকে শুরু করে শিবপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়-নন্দিতা রায়, সৃজিত মুখোপাধ্যায়, অতনু ঘোষ, সুমন ঘোষের মতো আজকের প্রজন্মের পরিচালকদের ছবিতে অভিনয় করেছেন প্রায় ৩০০ টির ও বেশি ছায়াছবিতে।

ভারত রত্ন – স্বাধীনতা সংগ্রামী পুত্র – প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখার্জী প্রয়াত।

দলের প্রতি আনুগত্য ও অসামান্য প্রজ্ঞা এই বাঙালি রাজনীতিবিদকে কংগ্রেস দলে ও এমনকি দলের বাইরেও বিশেষ শ্রদ্ধার পাত্র করেছে। দেশের প্রতি অবদানের জন্য তাকে ভারতের সর্বোচ্চ ও দ্বিতীয় সর্বোচ্চ অসামরিক সম্মান ভারতরত্ন ও পদ্মবিভূষণ এবং শ্রেষ্ঠ সাংসদ পুরস্কারে ভূষিত করা হয়েছে।

চিরবিদায় জানালেন প্রণব মুখার্জী – একমাত্র বাঙালি (প্রাক্তন) রাষ্ট্রপতি

ডায়াবেটিসের পরোনো সমস্যা তো ছিলই, অস্ত্রপ্রচারের ধাক্কা, ফুস্ফুসের সমস্যা, মুত্রাশয়ের সমস্যা, কোভিড সমস্যা - সবার যৌথ আক্রমণ প্রতিহত করে কোমা থেকে বাইরে আসা হলো না এই ভারত রত্নের।

প্রাইভেট চেম্বার ফেলে রাস্তায় পড়ে থাকা মহিলা কে সুস্থ করে তুললেন ডাঃ রাজেশ রায়।

এমনিতেই প্রত্যেকের মধ্যে কোভিড-জনিত একটা ত্রাস কাজ করে চলেছে বিগত কয়েক মাস ধরেই। আর রাস্তায় পড়ে থাকা মানুষকে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেওয়ার মানষিকতা ক্রমশই তলানীতে ঠেকেছে আমাদের সমাজে

কাকোরী ট্রেন লুন্ঠনের ৯৫ তম বর্ষ – বেঙ্গল ডিফেন্স

লুকিয়ে ফেলা হলো লুটের টাকা। রামপ্রসাদ ছাড়া আর কেউই জন্য না তার হদিস। যাদের মাথা গোঁজার ঠাঁই ছিল তারা ছড়িয়ে পড়লো এদিক ওদিকে। মন্মথ গুপ্তের কাছে লখনও শহর অপরিচিত। মাঠেই কাটিয়ে দিলেন রাত। ভোরবেলা হকারের হাতে ইন্ডিয়ান ডেলি টেলিগ্রাফের হেডলাইন দেখলেন মন্মথ। বড় বড় হরফে লেখা, 'Sensational Train Hold -up at Kakori' ...

বিশ্বকবির অন্তিম সময় ও জনতা – অনিকেত চৌধুরী

জনতা হবার সব থেকে বড় মজা হলো, জনতার কোনো responsibility নেই,কিন্তু ক্ষমতা আছে। জনতার কোনো মুখ নেই। সে faceless, identity less .. কিন্তু এখানে আছে মজা মারার অসীম সুযোগ।যা খুশি বলা যায়,যা খুশি করা যায়।

বাঙালি জাতীয়তাবাদ শুধু আবেগ নয়, বাঁচার লড়াই – সুলগ্না দাশগুপ্ত

এই লেখাটা এমন একটা সময় লিখছি যখন "বাঙালি" অভিনেত্রী...

মানুষ হতে শিক্ষাগত যোগ্যতা লাগে না প্রমাণ করেছেন আলপনা মন্ডল।

কলকাতায় বিভিন্ন বাড়ি বাড়ি গিয়ে যা বস্ত্র সংগ্রহ করেছেন তার মধ্যে থেকে স্থানীয় পর্যায়ে প্রায় ১০০টি বস্ত্র গরীব পরিবারের মানুষদের মধ্যে দান করা এবং হিউম্যান রাইটস কে ৭০টি বস্ত্র দেওয়ার পরে বর্তমানে ওনাদের ব্যাংকে গচ্ছিত আছে ৯০ টি শাড়ি,৫০ টি পাঞ্জাবি, ২০০ কুর্তি, ২৫০ টি শার্ট,২৫০টি হাফ এবং ফুল শার্ট, ১৫ টি সোয়েটার,৩০০টি বিভিন্ন সাইজের প্যান্ট, ১৫ টি ধুতি এবং ২০০ টি বিভিন্ন বয়সের বাচ্চাদের জামা প্যান্ট। সাথে কিছু ওড়না। আর প্রায় ১০০ টি ব্লাউজ মিলিয়ে মোট ১৪০০ টি বিভিন্ন ধরনের বস্ত্র।

বাছাই খবর